করোনা ভাইরাসের অভিঘাত মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ৩৫ বিলিয়ন জাপানী ইয়েন

প্রেস বিবরণী।
১৩০৫ঘটিকা, ০৫ আগষ্ট ২০২০, গণভবন, ঢাকা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দুপুর ১টা ৫মিনিটে জাপানরে প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে এর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। দু’নেতার কথপোকথন প্রায় ২৫ মিনিট স্থায়ী হয়।
দু’নেতা টেলিফোনে কুশলাদি বিনিময় করেন এবং দু’দেশের কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি সম্পর্কে একে অপরকে অবহিত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সরকার করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় এবং এর চিকিৎসা ক্ষেত্রে যে সকল উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সে সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন। এক পর্যায়ে জাপান সরকার কর্তৃক বাংলাদেশকে কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধক ইকুইপমেন্টস- পিপিই, মাস্ক, গাউন, গগলস ইত্যাদি প্রদানের জন্য শিনজো অ্যাবে-কে শেখ হাসিনা ধন্যবাদ জানান।
মূল আলোচনায় দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো জোরদার করার বিষয়গুলো উঠে আসে। জাপান সরকারের অর্থায়নে চলমান প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি সম্পর্কে দু’নেতা আলোচনা করেন। বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে আরো জাপানী বিনিয়োগের জন্য শেখ হাসিনা জাপানী প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন। তিনি চলমান রোহিঙ্গা সংকট সম্পর্কে শিনজো অ্যাবে-কে অবহিত করেন এবং এ সংকট উত্তোরণে জাপান সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন। শিনজো অ্যাবে মিয়ানমার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলবেন বলে আশ্বাস দেন। করোনা ভাইরাসের অভিঘাত মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ৩৫ বিলিয়ন জাপানী ইয়েন (৩২৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) আর্থিক সহযোগিতা প্রদান সংক্রান্ত একটি বিল জাপানী সংসদে ইতোমধ্যে অনুমোদন হওয়ার বিষটি জাপানী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবহিত করেন।
পরিশেষে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারীর কারনে বাতিলকৃত ‘২০২০ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক‘ ২০২১ সালে জাপানে যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ