দেশের করোনা পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে রয়েছে : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

 

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্ব আজ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

গাজীপুর, ২৯/৭/২০২০:

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্ব ও সময়োচিত সঠিক পদক্ষেপের কারনে দেশের করোনা পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এম পি।
তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্ব আজ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছে।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী ফোর্বস ম্যাগাজিন করোনা মোকাবেলায় বিশ্বের দুইশতটি দেশের মধ্যে ৭টি দেশের পদক্ষেপের প্রশংসা করে যে প্রতিবেদন প্রকাশ করে তার মধ্যে একটি দেশ বাংলাদেশ। প্রতিবেদনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, বিশ্ব শান্তির অগ্রদূত শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করে বলা হয়, বাংলাদেশে ১৬১ (১৬ কোটিরও বেশি) মিলিয়ন মানুষের বাস। দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দক্ষতার সঙ্গে সংকট মোকাবেলা তাঁর জন্য নতুন কিছু নয়। করোনা মোকাবেলায়ও তিনি দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ায় পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আজ গাজীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারনে ক্ষতিগ্রস্ত খেলোয়াড়, প্রশিক্ষক, ক্রীড়া সংগঠক, ক্রীড়া সংশ্লিষ্টদের এবং ২০১৯/২০২০ অর্থ বছরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্রীড়া ক্লাব এর অনুকূলে অনুদান মঞ্জুরির অর্থ সহায়তা ও চেক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনা সংক্রমনের শুরু থেকেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একের পর এক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তিনি প্রায় ৬ কোটি মানুষের ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন। কৃষক, শ্রমিক, দিনমজুর, মসজিদের ইমাম মোয়াজ্জেম, প্রতিবন্ধী, খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষ, শিক্ষকসহ নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত সব শ্রেনীর মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন মাদার অব হিউম্যানিটি খ্যাত বিশ্বের অন্যতম সেরা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি ক্ষতিগ্রস্হ শিল্প, সেবা, কৃষিসহ দেশের সকল সেক্টরে বিশেষ প্রনোদনা ঘোষণা করেছেন।

এই দুঃসময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়াঙ্গনেরও পাশে আছেন উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতির শুরুতেই করোনায় ক্ষতি গ্রস্হ খেলোয়াড়দের আমরা এক কোটি টাকা প্রদান করেছি। পরবর্তীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের আরো তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দেন। আমরা সেটিও দেশব্যাপী সকল
অসহায় দুস্থ খেলোয়াড়, প্রশিক্ষক, ক্রীড়া সংগঠক, ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিতরন করছি। এ বছর থেকে আমরা প্রথমবারের মতো ক্রীড়া ভাতা চালু করেছি। শুধু তাই নয়, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা ক্রীড়াবান্ধব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের ক্রীড়াবিদদের সার্বিক কল্যানে ১০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। ক্রীড়াক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অসামান্য অবদানকে আমি কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরন করছি।

এ সময়ে প্রতিমন্ত্রী গাজীপুরের ৮০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (কলেজ, হাইস্কুল, মাদ্রাসা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়) ও ক্রীড়া ক্লাবকে ৫০০০০/- টাকা করে মোট ৪০ লক্ষ টাকা এবং ৪৫ জন অস্বচ্ছল খেলোয়াড়কে ৭ হাজার টাকা করে মোট তিন লক্ষ পনের হাজার টাকা প্রদান করেন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক জনাব এস এম তরিকুল ইসলাম চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত