সরকার নারীর অর্থনৈতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে কাজ করে যাচ্ছে: মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

 

“মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চলতি অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত”

ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুলাই ২০২০:

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে এর আওতাধীন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, জাতীয় মহিলা সংস্থা, বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ও জয়িতা ফাউন্ডেশনের ২০২০-২০২১ অর্থবছরের কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) হয়েছে।

আজ ঢাকায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক সচিব কাজী রওশন আক্তারের সভাপতিত্বে চুক্তি স্বাক্ষরিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের পক্ষে মহাপরিচালক পারভীন আকতার, শিশু একাডেমির পক্ষে মহাপরিচালক জ্যোতি লাল কুরী, জাতীয় মহিলা সংস্থার পক্ষে নির্বাহী পরিচালক বেগম মাকসুরা নূর ও জয়িতা ফাউন্ডেশনের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজা খান মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষে সচিব কাজী রওশন আক্তার
এপিএতে স্বাক্ষর করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, সঠিক সময়ে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করলে আজকের চুক্তির লক্ষ্য অর্জিত হবে।
সরকার নারীর অর্থনৈতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে কাজ করে যাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে এ মন্ত্রণালয় ভিজিডি, মাতৃত্বকালীন ভাতা ও কর্মজীবী মা ল্যাক্টেটিং ভাতা প্রদানের মাধ্যমে অসহায় দুস্থ নারী ও শিশুদের খাদ্য এবং পুষ্টি চাহিদা নিশ্চিত করছে। সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করে ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজির গোল ৫ নারীর ক্ষমতায়ন ও জেন্ডার সমতা অর্জনে কর্মকর্তাদের কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
সচিব কাজী রওশন আক্তার বলেন, আজকের চুক্তির মাধ্যমে আমরা নারী ও শিশুর উন্নয়নের মত গুরুত্বপূর্ণ কাজের লক্ষ্য অর্জনে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হলাম।

নারী দারিদ্র্য হ্রাস, কর্মসংস্থান ও নারীর ক্ষমতায়নের উপর জোর দিয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এ অর্থবছরের এপিএ সরকারের স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা এবং উন্নয়ন নীতির সাথে সম্পর্কিত করে প্রণয়ন করা হয়েছে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও আওতাধীন দপ্তর-সংস্থাসমূহের কর্মকর্তা এবং প্রকল্প পরিচালকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ