ঢাকা, ২১ এপ্রিল ২০২৪, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
banglahour গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল

শাহরুখের সিনেমার নাম ‘ডাঙ্কি’ কেন, আর কেন দেখবেন?

বিনোদন | বিনোদন ডেস্ক

(৩ মাস আগে) ২১ ডিসেম্বর ২০২৩, বৃহস্পতিবার, ৪:৪১ অপরাহ্ন

banglahour

 

আগামী ২১ ডিসেম্বর খ্যাতিমান ভারতীয় নির্মাতা রাজকুমার হিরানি পরিচালিত ‘ডানকি’ ভারত সহ বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে। শাহরুখ খান অভিনীত ডানকি ভারতের সঙ্গে একইদিনে বাংলাদেশে মুক্তি পাবে। তথ্য মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে সিনেমাটি মুক্তির অনুমতি দিয়েছে।

অন্য সবার মতো হয়তো আপনারাও মুখিয়ে আছেন একই বছরে শাহরুখের তৃতীয় সিনেমাটি দেখার জন্য। সেইসঙ্গে মনে কৌতুহলও জাগতে পারে ‘পাঠান’, ‘জাওয়ান’ তো বুঝলাম এই সিনেমার নাম ‘ডাঙ্কি’ কেন? চলুন আপনাদের সেই কৌতুহল দূর করা যাক।

পাঁচ বন্ধু পঞ্জাব থেকে লন্ডন পৌঁছতে চায়। দেশ ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমানোর কারণ পাঁচ জনের পাঁচ রকম। অবশ্যই শাহরুখ ওরফে হার্ডি তাদের লিডার। সোজা পথে ভিসা নিয়ে যেতে পারছে না তারা। তাই হার্ডি ঠিক করে, ডাঙ্কি মেরেই লন্ডন পৌঁছবে তারা।

ছবির নাম ‘ডাঙ্কি’ হওয়ায় বিভ্রান্তি ছিল অনেকের। তবে বিরতি কয়েক মিনিট আগে বোঝা যায়, বেআইনি পথে নিরাপত্তারক্ষীদের চোখে ধুলো দিয়ে যে পথে হাজার হাজার মানুষ ভারত থেকে ইংল্যান্ডে ঢোকে, তাকেই বলে ‘ডাঙ্কি রুট’। রাজকুমারের যে কোনও ছবির মতোই এই ছবির গল্পও ঘটনাবহুল। তবে গল্পের নায়ক যে শাহরুখ খান, তা মাথায় রেখেই চিত্রনাট্য সাজানো হয়েছে। তাই শাহরুখের ‘ওপেনিং’ দৃশ্যেই বোমান ইরানির কণ্ঠে ভেসে আসে, ‘হার্ডি এ বার হ্যাট্রিক করতে পারে কি না দেখা যাক’। না, দুই বাহু প্রসারিত শাহরুখের সিগনেচার পোজ় এ ছবিতে নেই। কিন্তু তাঁকে ট্রেন থেকে নামতে দেখে অবশ্যই ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’-র কথা মনে পড়বে। তাঁর চরিত্র এবং পোশাক ‘যাব তাক হ্যায় জান’-এর স্মৃতি উস্কে দেবে। বছরের পর বছর বিয়ে না করে নায়িকার জন্য অপেক্ষা করার প্লটলাইন দেখে দর্শকের চোখের সামনে ভেসে উঠবে ‘বীর জ়ারা’। নাচ-গানের দৃশ্যে সাবলীল শাহরুখকে দেখে তাঁর বিভিন্ন রোম্যান্টিক ছবির কথা মনে পড়তে বাধ্য।

এই ছবিতে শাহরুখের নায়িকা তাপসী পন্নু। তাপসী বলিউডের শক্তিশালী অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম। কিন্তু এখানে তাঁর আর শাহরুখের রসায়ন যেন ঠিক জমেনি। মাঝে মাঝে মনে হতে পারে, তার বদলে অনুষ্কা শর্মার মতো কোনও অভিনেত্রী থাকলে কেমন হত। তাতে অবশ্য কিছু যায় আসে না বাদশার। কারণ, তিনি তো ‘কিং অফ রোম্যান্স’। রোম্যান্টিক শাহরুখের কাউকে প্রয়োজন পড়ে না। তিনি এখনও একাই আড়াই ঘণ্টা ধরে পর্দায় জাদু তৈরি করতে পারেন। এখানেও তাই করবেন।

ছবি জুড়ে দর্শককে ধরে রাখার বেশির ভাগ কৃতিত্ব শাহরুখের হলেও ছবির পার্শ্বচরিত্রে ভিকি কৌশল, বিক্রম কোচার এবং বোমান ইরানিকে উপেক্ষা করা যাবে না। কয়েক মিনিটের উপস্থিতিতেই নিজের জাত প্রমাণ করে দিয়েছেন ভিকি।

রাজকুমার বরাবরই বোমানকে বিশেষ চরিত্র দিয়ে থাকেন তাঁর ছবিতে। ফলে তাঁর কথা আলাদা করে মনে থাকবেই। বেশ কিছু মজাদার সংলাপ থাকলেও ‘থ্রি ই়ডিয়টস’-এর ‘অল ইজ় ওয়েল’ বা ‘সঞ্জু’-এর ‘ঘাপাঘাপ’-এর মতো কোনও ‘হুক ওয়ার্ড’ এ বার তৈরি হয়নি। তেমনই পরিচালকের বাকি ছবির মতো এই ছবিতে সঙ্গীত জোরের জায়গা নয়। অরিজিৎ সিংহের ‘লুটপুট গ্যায়া’ ছাড়া ছবির বাকি গান সে ভাবে মনে দাগ কাটবে না।

তবে রাজু হিরানির ছবি বলতেই দর্শকের মনে কিছু ছবি ভেসে ওঠে। চিত্রনাট্য আগায় একাধিক চরিত্র ধরে এঁকে-বেঁকে। যেখানে থাকে কমেডির ছলে সামাজিক বার্তা। থাকে ফুরফুরে রোম্যান্স আর নাচ-গানও। খুব চড়া নয়, থাকে সূক্ষ্ম দেশপ্রেমের ছোয়ও। সব মিলিয়ে ‘মাসালা বলিউড মুভি’ যাকে বলে, তাই পাওয়া যায় এই পরিচালকের ছোঁয়ায়।

খুব বেশি ছবি পরিচালনা করেননি তিনি। কিন্তু যে কয়েকটি নির্মাণ করেছেন, সবই সুপারহিট। ফলে বলিউডের প্রথম সারির সব অভিনেতা-অভিনেত্রীই তাঁদের ফিল্মোগ্রাফিতে রাজু হিরানির ছবি রাখতে চান।

সঞ্জয় দত্ত, রণবীর কাপুর ছাড়া তিনি এত দিন শুধু এক জন খানের সঙ্গেই কাজ করেছেন— আমির খান। আমিরের ঝুলিতে ইতিমধ্যেই দুটো রাজু হিরানির হিট ছবি। তাই দ্বিতীয় খানের সঙ্গে ছবি করার খবর ছড়াতেই নড়েচড়ে বসে বলিউড।

সবুরে যে মেওয়া ফলে তা অনেকেরই জানা। এ ক্ষেত্রেও তাই হল। ছবি তৈরি হতে অনেকটা সময় লাগলেও শেষমেশ এমন সময় মুক্তি পেল, যখন বাদশাকে নিয়ে উন্মাদনা তুঙ্গে। ফলে ছবির প্রচার নিয়ে খুব বেশ শোরগাল না থাকলেও ছবির অগ্রিম বুকিংয়ে কোনও রকম অসুবিধা হল না। ‘ফার্স্ট ডে ফার্স্ট শো’ রীতি অনুযায়ী হাউজ়ফুল।

তবে এ বছর যে অ্যাকশন সর্বস্ব শাহুরুখকে দেখে মোহিত হয়ে গিয়েছিলেন দর্শক, তাঁদেরকে পুরনো বাদশা ফিরিয়ে দিলেন রাজু হিরানি। বড় পর্দায় শাহরুখ এ বার স্বমহিমায় ‘কিং অফ রোম্যান্স’। -আনন্দবাজার

banglahour
banglahour
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ হোসনে আরা বেগম
নির্বাহী সম্পাদকঃ মাহমুদ সোহেল
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম
ফোন: +৮৮ ০১৭ ১২৭৯ ৮৪৪৯
অফিস: ৩৯২, ডি আই টি রোড (বাংলাদেশ টেলিভিশনের বিপরীতে),পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা-১২১৯।
যোগাযোগ:+৮৮ ০১৯ ১৫৩৬ ৬৮৬৫
contact@banglahour.com
অফিসিয়াল মেইলঃ banglahour@gmail.com