ঢাকা, ১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
banglahour গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল

ভাষা ও স্বাধীনতার মাস ডিসেম্বর ফেব্রুয়ারী

মতামত | মোঃ কামরুজ্জামান সালাম

(১ বছর আগে) ২৪ ডিসেম্বর ২০২২, শনিবার, ১১:২২ পূর্বাহ্ন

banglahour

ডিসেম্বর ও ফেব্রুয়ারী মাস বাংলাদেশের মানুষের জন্য উৎসব- আমেজের মাস। সারা বছর বাংলাদেশের মানুষ বিভিন্ন উপলক্ষ্য কেন্দ্রীক ভিন্ন ভিন্ন  উৎসব পালন করলেও এই দুটি মাস জুড়ে সর্ব সম্প্রদায়ের মানুষ এককেন্দ্রিক উৎসব পালনে ব্যতিব্যস্ত হয়। তা হলো বিজয় অর্জনের উৎসব। ভাষা ও স্বাধীনতা জয়ের উৎসব। এই দুটি মাসে বাংলাদেশের মানুষ মাতৃভাষা ও স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে কথা বলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে।

কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে ৫১ তম বিজয়ের মাসে  বাংলাদেশের মানুষ যেন অতিশয় আতঙ্কিত, নিস্প্রভ। বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাবের ফলে সাধারণ মানুষ যখন জীবন- জীবিকার নিশ্চয়তা নিয়ে  দিশেহারা। তখন তারমধ্যে বাড়তি রসদ জুগিয়েছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন কিভাবে হবে? বর্তমান সরকার রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকবে কি থাকবে না? তা নিয়ে বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর অতিশয় বাড়াবাড়ি। এরইমধ্যে আবার ৭১ এর পরাজিত শক্তির আস্ফালন।

বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ ক্ষমতার চেয়ারে বসা নিয়ে ব্যতিবস্ত না কিংবা দেশের কোন স্তরে কি কি উন্নয়ন হয়েছে তা নিয়েও তাদের মাথাব্যথা নেই। কোন নেতা এমপি হলো, কোন নেতা মন্ত্রী হলো, কে কি পরিমাণ অর্থ পাচার করলো, কে ব্যাংক লুট করলো, পদ্মা সেতু, কর্ণফুলী টানেল, পায়রা বন্দর, মোংলা বন্দর, মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্র , রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, মেট্রোরেল,  পাতালরেল, উড়ালসড়ক, এশিয়ার বৃহত্তম বঙ্গবন্ধু অর্থনৈতিক অঞ্চল,  শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের থার্ট টার্মিনাল, পদ্মারপাড়ে নতুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর , কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, সোনাদিয়া গভীর সমুদ্র বন্দর,  দেশে বিষয় ভিত্তিক নতুন নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে কত টাকা ব্যয় ও লুট হলো এগুলো এদেশের সাধারণ মানুষের চর্চিত বিষয় নয়।

সাধারণ মানুষের চর্চিত বিষয় দু'বেলা দুমুঠো পেটপুরে খেয়ে নির্বেজাল জীবন-যাপন করা। চাল, ডাল,  আটা, লবন, তৈল, শাক-সবজি, মাছসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য কত স্বল্প দামে ক্রয় করে পরিবার-পরিজন নিয়ে কিভাবে দিনাতিপাত করা যায়। সল্পমূল্যে কিভাবে স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া যায়। সল্পমূল্যে কিভাবে শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজেকে দক্ষ মানুষ হিসাবে গড়ে তোলা যায়।

যে দলই ক্ষমতায় থাকুক সাধারণ মানুষের সাধারণ চাহিদাগুলো সহজে পূরণ করতে পারলেই তারা খুশি।

কিন্তু রাজনৈতিক দলগুলো নিজেরদের গণমানুষের দল বলে গলাবাজি করলেও সাধারণ মানুষের  এই সকল চাহিদাপূর্ণ গণদাবীগুলো নিয়ে উচ্চবাচ্য না করে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন কিভাবে হবে?  কিভাবে ক্ষমতার চেয়ার দখল করা যায় তা নিয়েই বেশি ব্যতিবস্ত।
ক্ষমতার চেয়ার দখল করা নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর পাল্টাপাল্টি রাজনৈতিক কর্মসূচি, বাকবিতণ্ডা, লাশ ফেলে ক্ষমতায় যাওয়ার মতো জঘন্যতম কর্মসূচি পালনের উদেশ্য রাজপথকে বেচে নেয়ায় বিজয় উৎযাপনের মাসে বাংলাদেশ সাধারণ মানুষ আতঙ্ক আর অনিশ্চয়তার মধ্যে দিয়ে দিনপাড় করেছেন।

রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত দল ও দায়িত্বশীল বিরোধী দলগুলো সাধারণ মানুষের কল্যাণে ভূমিকা রাখাই যেখানে মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত সেখানে তারা যেন উল্টো রথে হাঁটতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। ক্ষমতাসীন দলের কতিপয় মন্ত্রীদের অতিকথন এবং বিরোধীদের ক্ষমতায় যাওয়ার নেশায় ধ্বংসাত্নক কর্মসূচি পালনের ধারাবাহিক উন্মাষিকতা সাধারণ মানুষ যে গ্রহণ করতে রাজি নয় তা যেন তারা বুঝতেই চায় না। যে কোনভাবে ক্ষমতা ধরে রাখতে পারলে কিংবা ক্ষমতায় যেতে পারলেই যেন কেল্লাফতে। যাদের ভোটে নির্বাচত হয়ে ক্ষমতার চেয়ার দখল করতে হবে  তাদের জীবনমান উন্নত করতে না পারলেও নিজেদের আখের ঘোঁচাতে  ও জীবনমানের উন্নয়ন ঘটানোই যেন তাদের মূল উদ্দেশ্যে পরিনত হয়।

জাতির পিতা কন্যা এবং একজন অভিজ্ঞ রাজনীতিক হিসাবে একমাত্র শেখ হাসিনাই যেন এক্ষেত্রে কেবল ব্যতিক্রম। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে তার সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের দিকে তাকালে মনে হয় এই দেশ ও দেশের সাধারণ মানুষের কল্যাণ কামনায় কাজ করা যেন তার একাই দায়িত্ব।  

১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাকান্ডে বাবা-মা,ভাই ও নিকট আত্মীয়দের হারিয়ে বিদেশ-বিভুঁইয়ে দীর্ঘ নির্বাসিত জীবন কাটিয়ে দেশে ফিরে এসে এক সমুদ্র শূন্যতাকে সাথে নিয়ে এবং রাষ্ট্রযন্ত্র ও নিজ দলের কতিপয় অতিলোভী,  পথভ্রষ্টদের ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে  বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যন্নোয়নে একাই লড়ে যাচ্ছেন। বার বার মৃত্যু আঘাতকে আলিঙ্গন করে ইস্পাত কঠিন মানসিক দৃঢ়তায় এই দেশটাকে বিশ্ব দরবারে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করার লড়াইয়ে তিনি আজ এক অপ্রতিরোধ্য সেনাপতির আসনে অধিষ্ঠিত। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা সাধারণ মানুষের মন প্রতি শেখ হাসিনার নির্মোহ আবেগ, ভালোবাসা,  তাদের জীবনমান উন্নয়ন তার যে আদর্শ,  দর্শনকে ধারণা করার ধারেকাছেও আছে বলে মনে হয় না। বিজয়ের মাসে রাজনৈতিক নেতাদের মধ্যে শুভবুদ্ধির উদয় হবে এটাই আমাদের একান্ত প্রত্যাশা।


সাবেক সহ-সভাপতি,  বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

banglahour
banglahour
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ হোসনে আরা বেগম
নির্বাহী সম্পাদকঃ মাহমুদ সোহেল
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম
ফোন: +৮৮ ০১৭ ১২৭৯ ৮৪৪৯
অফিস: ৩৯২, ডি আই টি রোড (বাংলাদেশ টেলিভিশনের বিপরীতে),পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা-১২১৯।
যোগাযোগ:+৮৮ ০১৯ ১৫৩৬ ৬৮৬৫
contact@banglahour.com
অফিসিয়াল মেইলঃ banglahour@gmail.com