ঢাকা, ২৪ মে ২০২৪, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
banglahour গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল

গোরু পালন থেকে উট পালন, হতে পারে আর্থসামাজিক কল্যাণ

মতামত | মতামত ডেস্ক

(১ মাস আগে) ১৮ এপ্রিল ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৩:১৮ অপরাহ্ন

banglahour

বাংলাদেশে এখন গরুর গোশতের দাম অনেক বেশি। এর প্রধান কারণ গরু আর আগের মত পালন হচ্ছে না বাংলাদেশে।

কিন্তু দাম বাড়লেও এবং গোপালন কম হলেও চাহিদা কিন্তু দিন দিন বাড়ছে গরুর গোশতের চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা আগের চেয়ে অনেক বেশি বেড়েছে। এটা যতটা না প্রয়োজনের জন্য তার চেয়ে বেশি আবেগের জন্য।

এই আবেগটুকু যদি আমরা গরুর গোস্ত থেকে ডাইভার্ট করে উটের দিকে ফিরিয়ে নিতে পারি তাহলে তা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য যেমন উপকারী হবে তেমনি সামাজিক শান্তি শৃঙ্খলার জন্য উপকারী হবে। বিশেষ করে ধর্মীয় সম্প্রীতি রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে।
একগুয়েমি বাদ দিয়ে আমরা উট পালনের দিকে মনোযোগ ফেরাতে পারি।

কেননা পুষ্টিবিজ্ঞানীদের মতে উটের মাংস যেকোনো মাংসের চেয়ে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর এবং প্রোটিনসমৃদ্ধ। ঘন সন্নিবেশিত যোজক কলার মাঝখানে শক্ত আঁশের আমিষ নিয়ে গঠিত উটের মাংসে সম্পৃক্ত চর্বি গরু বা ভেড়ার মাংসের তুলনায় একেবারেই কম থাকে। তবে এতে অসম্পৃক্ত চর্বি বেশি পরিমাণে থাকে বলে, এটি রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায় এবং হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে। ভিটামিন সি, ডি, লৌহ এবং অন্যান্য খনিজ লবণের চমৎকার উৎস হিসেবে উটের মাংস খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারীই হবে বলা যায়।

উটের দুধের উপকারীতাঃ

গরুর দুধের থেকে উটের দুধে ভিটামিন সি তিনগুণ বেশি থাকে। আর আয়রন থাকে ১০ গুণ বেশি। ছাগল ও গরুর দুধের থেকে অনেক কম পরিমাণে কোলেস্টেরল থাকে। উচ্চমাত্রার ভিটামিন বি এবং অসম্পৃকত চর্বিজাত এসিড পাওয়া যায় উটের দুধ থেকে। গরুর দুধের থেকে স্বল্পমাত্রার ল্যাকটোজ থাকে উটের দুধে। যাদের ল্যাকটোজ হজমে সমস্যা হয় তাদের জন্য এটা বেশ সুবিধাজনক। উটের দুধে চর্বির পরিমাণ কম। যা পাকস্থলির জন্য বেশ গরুর উপকারি। উচ্চমাত্রার মিনারেলের পাশাপাশি ইমুইনোগ্লোবিন নামে এক ধরনের অ্যান্টিবডি থাকে যা ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস ধ্বংসে বিশেষ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।

উটের কাছ থেকে পরিবেশগত যানবাহন গত আরো অনেক ধরনের উপকারিতা পাওয়া যায়। হয়তো এ কারণেই পবিত্র কোরআন বলছে উটের দিকে তাকাও দেখো তাকে কিভাবে সৃষ্টি করা হয়েছে....

অন্যদিকে গরুর মাংসের বেশ কিছু ক্ষতিকর দিক রয়েছে...

1 কোষ্ঠকাঠিন্যের ঝুঁকি বাড়ায়

অতিরিক্ত গরুর মাংস খেলে বাড়ে কোষ্ঠকাঠিন্যের ঝুঁকি। কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে পরবর্তীতে আরও বড় অসুখ দেখা দিতে পারে।

2. কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি

চিকিৎসকদের মতে, সপ্তাহে পাঁচ বেলা গরু, খাসি কিংবা ভেড়ার মাংস খেলে বাড়ে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি। সেইসঙ্গে প্রক্রিয়াজাত লাল মাংস খেলে তা মৃত্যু ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দেয়।

3. হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি

গরুর মাংস খেলে উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে। এতে থাকা অতিরিক্ত সোডিয়াম শরীরে রক্তচাপ সৃষ্টিতে কাজ করে । তাই গরুর মাংস খেলে হতে পারে উচ্চ রক্তচাপ। সেখান থেকে দেখা দেয় হৃদরোগ ও স্ট্রোকের মতো সমস্যা।

কতটুকু গরুর মাংস খেতে পারবেন?

দৈনিক গরুর মাংস খেতে পারবেন ৮৫ গ্রাম। ৮৫ গ্রাম চর্বি ছাড়া গরুর মাংস খেলে তা আপনার দৈনিক ক্যালোরির চাহিদার ১০ শতাংশ পূরণ করবে।

বাংলাদেশে ইদানিং উৎপাদন খুবই স্বল্প পরিমাণে হলেও শুরু হয়েছে। উটপালনের ইতিবাচক প্রচারণা বাড়লে আশা করা যায় মানুষ অচিরেই গো পালনের বিকল্প হিসেবে উটপালনকে বেছে নেবে।

বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণী বিভাগ এ ব্যাপারে উদ্যোগী হলে বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনীতি , স্বাস্থ্য সুরক্ষা, সামাজিক সংহতি ইতিবাচকভাবে বদলে যেতে পারে।

মতামত থেকে আরও পড়ুন

banglahour
সীমিত আয়ের মানুষ যাবে কোথায়?
ঈদের পর নতুন বেশ কিছু পণ্যের দাম বেড়েছে

সর্বশেষ

banglahour
banglahour
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রাপ্ত নিউজ পোর্টাল
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ হোসনে আরা বেগম
নির্বাহী সম্পাদকঃ মাহমুদ সোহেল
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম
ফোন: +৮৮ ০১৭ ১২৭৯ ৮৪৪৯
অফিস: ৩৯২, ডি আই টি রোড (বাংলাদেশ টেলিভিশনের বিপরীতে),পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা-১২১৯।
যোগাযোগ:+৮৮ ০১৯ ১৫৩৬ ৬৮৬৫
contact@banglahour.com
অফিসিয়াল মেইলঃ banglahour@gmail.com